রাসেল হাসানের বসন্তের কবিতা “প্রকৃত বসন্ত”


DBkhobor24 প্রকাশের সময় : ফেব্রুয়ারী ১৯, ২০২২, ৮:২৮ PM /
রাসেল হাসানের বসন্তের কবিতা “প্রকৃত বসন্ত”

প্রকৃত বসন্ত
মোঃ রাসেল হাসান

বসন্ত মানে শুধু শিমুল পলাশ নয়
বসন্ত মানে বালিকা
বিশেষত মেঘবর্ণ অলকে ফুলে মোড়ানো,
ঠোঁটে লিপিস্টিক ও কপালে নক্ষত্রখচিত টিপে
সজ্জিত বালিকা।
কুন্তল যে শুধু ঘন কালোই হতে হবে
এমন কোনো কথা না,
আমেরিকার ভদ্র রমণীদের ন্যায়
অশ্বের লেজের কালার হলেও দোষ নেই।
তবে মাথায় বিচিত্র ফুলের চেইন বাধ্যতামুলক।
যে বা যারা যেভাবে রূপ চমকালে বিচ্ছুরিত রূপ
পেরেক হয়ে ঢুকে যায় মননে,
অনায়াসে ডিলিট হয়ে যায়
অতীতের প্রেম বা রমণীর কথা।
বসন্ত মানে সেরকম, রমণীর সেরকম লালিত্যঝংকার।

বসন্ত মানে শুধু দখিনা বাতাস নয়
বসন্ত মানে ছিমছাম ছেলে মাতাল হয়ে যাওয়া,
প্রেম বুঝে যাওয়া, ভালোবাসা ক্ষুধা বুঝে যাওয়া।

বসন্ত মানে শুধু এলোমেলো বাতাস নয়।
বসন্ত মানে অনাড়ি কিশোরের লোভের লতা বটগাছ হয়ে
স্বর্গ আলিঙ্গন করতে চাওয়া।
বসন্ত মানে হঠাৎ রমণী পুষ্পোদ্যান হওয়ায়
খুশিতে মত্ত প্রকৃতি, উন্মত্ত পবন চালিকা।
বসন্ত মানে স্তনফুলে পরিপুষ্ট পরম মনোহর বালিকা

পুড়িয়ে দেওয়া চোখ।

রচনা- রাত ১২টা ০৩মিনিট
প্রথম প্রহর ১৬ই ফেব্রুয়ারি ২০২২ইং
নগুয়া কুশলগাঁও, নেত্রকোনা।