1. bdsaifulislam304@gmail.com : DBkhobor24 :
  2. mdroni0939@gmail.com : roni :
মেলায় গিয়ে ২দিনেও বাড়ি ফিরেনি স্কুল ছাত্রি মাহিমা - দেশবাংলা খবর২৪
২রা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ| ১৯শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ| শীতকাল| বৃহস্পতিবার| রাত ২:০৩|

মেলায় গিয়ে ২দিনেও বাড়ি ফিরেনি স্কুল ছাত্রি মাহিমা

রিপোর্টারের নাম
  • প্রকাশিত সময় মঙ্গলবার, ২৪ জানুয়ারি, ২০২৩
  • ১ জন দেখেছেন

কাকন সরকার শেরপুর প্রতিনিধি:

শেরপুর জেলা শহরের একটি বেসরকারি স্কুলে অধ্যয়নরত ১০ম শ্রেনীর এক স্কুল ছাত্রি মেলায় যাবার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়ে ২দিন যাবত নিখোঁজ রয়েছেন। নিখোঁজ স্কুল ছাত্রির নাম তানজিনা মুনতাহিম মাহিমা (১৪)। সে পৌর শহরের রাজভল্লবপুর এলাকার জনৈক আলহাজ মফিকুল ইসলাম নান্নুর মেয়ে।

এ ঘটনায় তার চাচা মো. মোস্তাফিজুর রহমান ২৩ জানুয়ারি মঙ্গলবার বাদি হয়ে শেরপুর সদর থানায় একটি সাধারন ডায়েরি করেন, যার নাম্বার-১৩৬৭। এঘটনায় শিক্ষার্থীটির পরিবারে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। বার বার মুর্ছা যাচ্ছে তার বাবা-মা।

পুলিশ ও পরিবার সূত্রে জানাযায়, গত ২২ জানুয়ারী রবিবার মেয়েটি তাদের রাজভল্লবপুরস্থ বাসা থেকে মেলায় যাওয়ার কথা বলে বের হয়। এসময় সে তার বাবার কাছ থেকে ১শ টাকাও নিয়ে যায় ফুচকা খাবার জন্য। এর পর থেকে সে আর বাসায় ফিরেনি এবং পরিবারের কারও সাথে কোন ধরনের যোগাযোগ করেনি।

সন্ধা পার হয়ে যাওয়ার পরও সে বাড়িতে না ফেরায় পরিবারের লোকজন মেলায় খোজাখুজি করেও পায়নি। পরে তাদের সকল নিকট আত্বিয়ের সাথে যোগাযোগ করেও ব্যর্থ হয় তার পরিবার।

এ ব্যাপারে স্কুল ছাত্রিটির বাবা কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন, আমার একমাত্র সন্তান হাড়িয়ে আমি এখন নির্বাক। তবে আমার মেয়ে অত্যন্ত দুরন্ত ও রাগী। এর আগেও সে রাগ করে এক আত্বিয়ের বাড়িতে চলে গিয়েছিলো। আমার মেয়ের নিজের সিদ্ধান্ত নেয়ার এখনও বয়স হয়নি। তাই আমি আমার মেয়েকে দ্রত ফেরত চাই আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে।

শেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বছির আহমেদ বাদল বলেন, আমরা ঘটনাটি শুনেছি এবং ঘটনাটি সাধারন ডায়েরিভুক্ত করা হয়েছে। আমরা তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে চেষ্টা চালাচ্ছি যেন দ্রত সময়ের মধ্যে তাকে ঘরে ফেরত আনা যায়। পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা চলমান রয়েছে।

আপনার সামাজিক মিডিয়ায় সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরও সংবাদ পড়ুন
© All rights reserved © 2023 deshbanglakhobor24