বান্দরবান জেলার সাবেক ইউপি সদস্য ৫০ হাজার পিস ইয়াবা সহ গ্রেফতার


DBkhobor24 প্রকাশের সময় : মার্চ ৩০, ২০২২, ১:৩৯ PM /
বান্দরবান জেলার সাবেক ইউপি সদস্য ৫০ হাজার পিস ইয়াবা সহ গ্রেফতার

মোহাম্মদ জুবাইর চট্টগ্রাম।

বান্দরবান জেলার থানচি এলাকায় র‌্যাব-৭, চট্টগ্রামের অভিযানে ৫০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধারসহ মাদক ব্যবসায়ী সাবেক ইউপি সদস্য “নিঙমং চিং মারমা” গ্রেফতার।

র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম কর্তৃক বেশ কিছুদিন যাবৎ খবর পাচ্ছিল যে, বান্দরবান পার্বত্য জেলার থানচি থানাধীন বলিপাড়া এলাকার বান্দরবান টু থানচি সড়কে আইলমারা ঝিরি স্টীল ব্রীজের নিকটস্থ পাহাড়ের পাদদেশে একটি শক্তিশালী মাদক সিন্ডিকেট ইয়াবা ট্যাবলেট পাইকারি ও খুচরা বিক্রি করে আসছে।

উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে গত ২৯ মার্চ ২০২২ ইং সন্ধ্যা ০৬ঃ১৫ ঘটিকায় র‌্যাব-৭, চট্টগ্রামের একটি আভিযানিক দল বর্ণিত এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে আসামী নিঙমং চিং মারমা, পিতা- মৃত চিংলা অং মারমা, সাং- বড় মদক, থানা- থানচি, জেলা- বান্দরবান কে আটক করে। পরবর্তীতে উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মুখে আটককৃত আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদে, তার নিজ হেফাজতে থাকা একটি স্কুল ব্যাগ হতে ৫০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধারসহ আসামীকে গ্রেফতার করা হয়।

এলাকাবাসী থেকে জানা যায়, ধৃত আসামী নিঙমং চিং মারমা একজন প্রভাবশালী ব্যক্তি। সে থানচি সদর ইউপির ৩ নং ওয়ার্ডের একজন সাবেক ইউপি সদস্য। তার কোনো কাজের প্রতিবাদ করার সাহস স্থানীয় লোকদের ছিল না। তাছাড়া এলাকাটি দুর্গম সীমান্তবর্তী হওয়ায় আসামী নিঙমং চিং মারমা স্থানটিকে মাদক কেনাবেচার উপযোগী জায়গা হিসেবে বেছে নিয়েছিল। প্রতিদিন দুপুরের পর থেকেই উক্ত স্থানে মাদক ব্যবসায়ীদের আনাগোনা লক্ষ্য করা যেত। প্রত্যন্ত অঞ্চল বিধায় উক্ত স্থানে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ততটা গমনাগমন ছিল না। এই সুযোগটিকে কাজে লাগিয়ে মাদক সম্রাট নির্বিঘ্নে এই মাদকের ব্যবসা গড়ে তুলেছিল।

উল্লেখ্য যে, দীর্ঘদিন পর হলেও র‌্যাব-৭, চট্টগ্রামের এই অভিযান ও মাদক সম্রাট নিঙমং চিং মারমা গ্রেফতার হওয়ায় এলাকার জনসাধারণ স্বস্থি প্রকাশ করছে এবং র‌্যাবের এই অভিযানকে তারা সাধুবাদ জানিয়েছে।

গ্রেফতারকৃত আসামী এবং উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্য সংক্রান্তে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে বান্দরবান পার্বত্য জেলার থানচি থানায় মাদকদ্রব্য আইনে একটি মামলা দাযের করা হয়েছে।