ফলোআপ: সংবাদ প্রকাশের পর জেলা শিক্ষা অফিসের তদন্ত কমিটি গঠন


DBkhobor24 প্রকাশের সময় : ফেব্রুয়ারী ২৭, ২০২২, ১:০৩ PM /
ফলোআপ: সংবাদ প্রকাশের পর জেলা শিক্ষা অফিসের তদন্ত কমিটি গঠন

নীলফামারী জেলা প্রতিনিধি:

নীলফামারী সদর উপজেলার রামনগর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অহেদুল ইসলাম ও সভাপতি মোঃ আসাদুত জামান এর বিরুদ্ধে একুশে ফেব্রুয়ারি মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে শহীদ মিনারে ফুল না দেওয়ার ও ময়লা আবর্জনায়, ইটের খোয়ায় অরক্ষিত শহীদ মিনার রাখার অভিযোগে জেলা শিক্ষা অফিস থেকে ২ সদস্যের ও উপজেলা শিক্ষা অফিস থেকে ১ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

গত সোমবার (২১/ফেব্রুয়ারি) ‘অযত্নে অবহেলায় পরে আছে রামনগর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শহীদ মিনার’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত হলে নড়েচড়ে বসে জেলা ও উপজেলা শিক্ষা অফিস।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়,গত ২১ ফেব্রুয়ারি বেলা ১১ টায় গিয়ে দেখা যায়, বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষ তালাবদ্ধ। কোনো শিক্ষক বা শিক্ষার্থীরই দেখা নেই। ময়লা আবর্জনায়, ইটের খোয়ায় অরক্ষিত শহীদ মিনারের বেদিতে কোনো ফুল নেই। দেখানো হয়নি ভাষা শহীদদের প্রতি সম্মান ও শ্রদ্ধা।পরে স্থানীয় একটি কিন্ডার গার্টেনের পক্ষ থেকে পুষ্প মাল্য অর্পণ করা হয়।

বিদ্যালয়ের একাধিক শিক্ষার্থী জানায়, স্যারেরা তো একুশে ফেব্রুয়ারি সম্পর্কে কিছু জানাননি। তাই আমরা তাই ফুল দিতে যাইনি।

রামনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান বাবু জানান, মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করার কথা থাকলেও কেনো ওই প্রতিষ্ঠান করেনি এ বিষয়ে আমি তাদের সাথে কথা বলবো।

রামনগর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অহেদুল ইসলাম ও সভাপতি মোঃ আসাদুত জামান এর মোবাইল ফোনে কল দিলে তারা ফোন ধরেনি।

এ বিষয়ে জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো:শফিকুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।কয়েকদিনের মধ্যে জানা যাবে তদন্ত কমিটির রিপোর্ট।