প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে বন বিভাগের গাছ কর্তন করে বনজ সম্পদ ঝুঁকিতে


DBkhobor24 প্রকাশের সময় : মার্চ ১, ২০২২, ৬:১৯ PM /
প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে বন বিভাগের গাছ কর্তন করে বনজ সম্পদ ঝুঁকিতে

আবুল হাশেম, রাজশাহী।

রাজশাহীর বাঘায় প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে বন বিভাগের গাছ কর্তন করা হয়েছে। উপজেলার ২ নং গড়গড়ি ইউনিয়নের খায়ের হাট এলাকার পদ্মার চরে অবৈধ ভাবে বন বিভাগের ২০টি গাছ কর্তন করা হয়।

মঙ্গলবার (০১ মার্চ) সকাল থেকে এ গাছ কাটা হয়। সাংবাদিকদের দেওয়া তথ্যে নিশ্চিত হয়ে উপজেলা বন কর্মকর্তা তাৎক্ষণিক ঘটনা স্থলে যান।

জানা যায়,গড়গড়ি ইউনিয়নের খায়ের হাট এলাকার মৃত সায়েদ প্রামানিক এ-র ছেলে ইলিয়াস আহমেদ সোনা ও মৃত আবেদ আলীর ছেলে নান্টু আলী পদ্মার চর এলাকার রাস্তার দুই পাশের ২০টি গাছ কেটে বিক্রি করেছে। কর্তনকৃত গাছ গাড়িতে তোলার সময় বন কর্মকর্তা জহুরুল ইসলাম তা জব্দ করেন।

ইলিয়াস আহমেদ সোনা ও নান্টু আলী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বিভিন্ন ভাবে সাংবাদিকদের ম্যানেজ করার চেষ্টা করেন এবং বনকর্মকর্তা তাদের আত্মীয় বলে জানান।

গড়গড়ি ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক ইউপি সদস্য মমিন মন্ডল জানান,আমি এই কমিটির সভাপতি এই গাছ কাটার বিষয়ে কিছুই জানিনা। যারা এই ঘটনার সাথে যুক্ত তাদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি চাই।

উপজেলা বন কর্মকর্তা জহুরুল ইসলাম জানান, প্রথমিক ভাবে খবর পেয়ে আমি ঘটনা স্থলে গিয়েছি এবং কাটা গাছ গুলো বন বিভাগের তা নিশ্চিত হয়ে জব্দ করেছি। বিষয়টি উর্ধতন কর্মকর্তাকে জানানো হয়েছে।

এ বিষয়ে বাঘা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পাপিয়া সুলতানা জানান, অবৈধ ভাবে কাটা গাছগুলো জব্দ করে এর সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।