নীলফামারীতে “মুক্তিযুদ্ধে বঙ্গবন্ধুর অবদান ” শীর্ষক আলোচনা সভা


DBkhobor24 প্রকাশের সময় : মার্চ ২, ২০২২, ৮:৪৭ PM /
নীলফামারীতে “মুক্তিযুদ্ধে বঙ্গবন্ধুর অবদান ” শীর্ষক আলোচনা সভা

নাসির উদ্দিন শাহ মিলন,নীলফামারী প্রতিনিধিঃ

নীলফামারীতে “মুক্তিযুদ্ধে বঙ্গবন্ধুর অবদান ” শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (২ মার্চ) সদর উপজেলা পরিষদের আয়োজনে পরিষদ চত্বরে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জেসমিন নাহারের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শাহিদ মাহমুদ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মফিজুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের নির্বাহী সদস্য ও বঙ্গবন্ধু পরিষদের সিনিয়ন সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এ.একে.এম আমিনুল হক, বীর মুক্তিযোদ্ধা বাবু বংকু বিহারী রায়, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওয়াদুদ রহমান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সান্তনা চক্রবর্তী, সদর উপজেলা প্রকৌশলী নুর উদ্দিন আহমেদ, সদর উপজেলা সমবায় অফিসার মঞ্জুর মোর্সেদ তালুকদার সহ বীরমুক্তিযোদ্ধা, জনপ্রতিনিধি ও শিক্ষার্থী সহ আরো অনেকে।

মুক্তিযুদ্ধে বঙ্গবন্ধুর অবদান সম্পর্কে স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধারা বলেন,‘১৯৭০ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করলে পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠীর ক্ষমতা হস্তান্তরের অনীহার কারণে বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে বাংলার মুক্তিকামী মানুষ অসহযোগ আন্দোলন শুরু করে।

১৯৭১ সালের ৭ মার্চ রেসকোর্স ময়দানে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ভাষণে তিনি স্বাধীনতার ঘোষণা দেন। বজ্রকণ্ঠে উচ্চারণ করেন, ‘এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম’। ২৫ মার্চ কালরাত্রে পাকিস্তানি হানাদারবাহিনী বাঙালিদের নিধনে অপারেশন সার্চলাইটের মাধ্যমে গণহত্যা শুরু করে।

এ প্রেক্ষাপটে ২৬ মার্চের প্রথম প্রহরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা দেন এবং সর্বস্তরের জনগণকে মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ার ডাক দেন। তার বলিষ্ঠ আহবানে বাঙালীরা ঝাপিয়ে পড়ে যুদ্ধে।’আলোচনা সভা শেষে সেখানে সাংস্কৃতিব অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।