দিনাজপুরে সেচ সুবিধার আওতায় আসছে তিনহাজার ছয়’শ হেক্টর জমি


DBkhobor24 প্রকাশের সময় : ফেব্রুয়ারী ২৩, ২০২২, ৬:৪২ PM /
দিনাজপুরে সেচ সুবিধার আওতায় আসছে তিনহাজার ছয়’শ হেক্টর জমি

দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ জেলায় সদর উপজেলার গৌরীপুরে পুনর্ভবা নদীতে নির্মিত পানি নিয়ন্ত্রণ অবকাঠামো তথা স্লুইসগেট চালু হলে দিনাজপুর সদর ও বিরল উপজেলায় খরা মৌসুমে তিনহাজার ছয়শ’ হেক্টর অনাবাদি জমির সেচ সুবিধার আওতায় আসবে। বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) তত্ত্বাবধানে ৬২ কোটি ৯৬ লাখ টাকা ব্যয়ে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হয়েছে। গৌরীপুর স্লুইসগেটটির নির্মাণকাজ প্রায় শেষ। ইতিমধ্যে স্লুইসগেট অবকাঠামোর ওপর নির্মিত সেতুটি এলাকাবাসির ব্যবহারের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হয়েছে। শিগগিরই স্লুইসগেটটি উদ্বোধন করা হবে।
দিনাজপুরে পানি উন্নয়ন বোর্ডের সহকারী প্রকৌশলী আব্দুস সাত্তার আজ বুধবার এসব তথ্য নিশ্চিত করে জানান, ২০১৬ সালে এ প্রকল্পটির নির্মানকাজ শুরু হয়। এ প্রকল্পের আওতায় রয়েছে পানির প্রবাহ নিয়ন্ত্রণকারী চারটি ভেন্ট। ছয় দশমিক পাঁচ মিটার উচ্চতা বিশিষ্ট প্রতিটি ভেন্ট ছয়মিটার প্রশস্ত। রয়েছে ৯২ মিটার উইয়্যার (অতিরিক্ত পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা)। স্লুইসগেটের মূল স্থাপনা থেকে ১৪ কিলোমিটার পর্যন্ত পুনর্ভবা নদীতে পানি ধরে রাখা সম্ভব হবে।
দিনাজপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী রাকিবুল ইসলাম বলেন, গৌরীপুর স্লুইসগেটটির নির্মাণকাজ প্রায় শেষ। এর ফলে সদর ও বিরল উপজেলার প্রায় তিনহাজার ছয়শ’ হেক্টর অনাবাদি জমি চাষের আওতায় আসবে। ইতিমধ্যে স্লুইসগেট অবকাঠামোর ওপর নির্মিত সেতু উন্মুক্ত করে দেয়ায় বিরল উপজেলার ধর্মপুর ইউনিয়নের সঙ্গে জেলা সদরের যোগাযোগ আরও সহজ হয়েছে। তবে এ সেতু দিয়ে কোন ধরনের ভারী যানবাহন চলাচলের অনুমতি থাকবে না।