তিস্তা ব্যারাজ থেকেও দেখা মিলছে কাঞ্চনজঙ্ঘার


DBkhobor24 প্রকাশের সময় : অক্টোবর ২৪, ২০২২, ৫:০৩ PM /
তিস্তা ব্যারাজ থেকেও দেখা মিলছে কাঞ্চনজঙ্ঘার

জেলা প্রতিনিধি | লালমনিরহাটঃ

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার দোয়ানী এলাকায় অবস্থিত তিস্তা ব্যারাজের ওপর দিয়ে উঁকি দিচ্ছে কাঞ্চনজঙ্ঘা। ওই এলাকা থেকে ভোর ৬টা থেকে সকাল ৮টা এবং বিকেল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত কাঞ্চনজঙ্ঘার দেখা মিলছে।

সোমবার (২৪ অক্টোবর) ভোর ৬টায় থেকে সকাল ৮টা পর্যন্তও তিস্তা ব্যারাজের ওপর দিয়ে কাঞ্চনজঙ্ঘা দেখা গেছে। সকালে সরেজমিন গিয়ে তিস্তা ব্যারাজের উত্তরের আকাশে মেঘ না থাকায় ঝকঝকে কাঞ্চনজঙ্ঘা চোখে পড়ে।

এছাড়া তিস্তা ব্যারাজ দিয়ে নদী পারাপার হলেও চোখে পড়ছে কাঞ্চনজঙ্ঘার স্পষ্ট ছবি। তিস্তাপাড়ের বাসিন্দারা গেলো কয়েকদিন ধরে এই কাঞ্চনজঙ্ঘার সৌন্দর্য উপভোগ করছেন বলে জানিয়েছেন। সেইসঙ্গে তিস্তা ব্যারাজ থেকে উত্তরের দিকে তাকালে কাঞ্চনজঙ্ঘা ছাড়াও ছোট-বড় অসংখ্য পাহাড় চোখে পড়ে।

জানা গেছে, উত্তর জনপদে শীত নামার শুরুতে আকাশ পরিষ্কার থাকলে লালমনিরহাটের পাটগ্রাম ও হাতীবান্ধা উপজেলার বিভিন্ন স্থান থেকে প্রতিবছর কাঞ্চনজঙ্ঘার দেখা মেলে। বিশ্বের তৃতীয় সর্বোচ্চ শ্বেতশুভ্র পর্বতশৃঙ্গটি ভারতের সিকিম রাজ্যের সঙ্গে নেপালের পূর্বাঞ্চলীয় সীমান্তে অবস্থিত।

তিস্তা ব্যারাজ এলাকার সীমান্ত বাজারের মামুন মিয়া বলেন, তিস্তা ব্যারাজ থেকে কাঞ্চনজঙ্ঘা দেখা যাবে এটা আমরা বিশ্বাস করতে পারিনি। আজ নিজ চোখে কাঞ্চনজঙ্ঘা দেখলাম। কুয়াশা না থাকায় আমরা খুব স্পষ্টভাবে কাঞ্চনজঙ্ঘা দেখতে পেয়েছি। পর্বতশৃঙ্গটির অপরূপ সৌন্দর্য আমাদের তিস্তা ব্যারাজ থেকেই উপভোগ করেছি।

ঢাকা থেকে তিস্তা ব্যারাজের ঘুরতে আসা রূপালী ব্যাংকের কর্মকর্তা শাহীন মাহামুদ বলেন, রূপালী ব্যাংকের নীলফামারীর ডালিয়া শাখায় অডিটে এসেছি। আজ সকালে তিস্তা ব্যারাজে ঘুরতে এসে কাঞ্চনজঙ্ঘা চোখে পড়ে। আমি জানতাম বাংলাদেশে কাঞ্চনজঙ্ঘা শুধু পঞ্চগড় থেকে দেখা যায়। তিস্তা ব্যারাজ থেকে কাঞ্চনজঙ্ঘা দেখে অবাক হয়েছি, সেইসঙ্গে আনন্দও পেয়েছি।

যশোর থেকে ঘুরতে আসা এনামুল হক বলেন, দুই বন্ধু মিলে উত্তরাঞ্চলের কয়েকটি জেলায় ঘুরতে এসেছি। এখানে তিস্তা ব্যারাজ থেকে কাঞ্চনজঙ্ঘা দেখে খুবই আনন্দিত। তিনি আরও বলেন, ভারত কিংবা নেপালে না গিয়ে তিস্তা ব্যারাজ থেকে কাঞ্চনজঙ্ঘা দেখে অবাকও হয়েছি।

হাতীবান্ধার দোয়ানি পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) নুর আলম বলেন, তিস্তা ব্যারাজ থেকে নেপালের দূরত্ব কম হওয়ায় এখান থেকে ভোরে ও বিকেলে কাঞ্চনজঙ্ঘাসহ ছোট-বড় অনেক পাহাড় দেখা যায়। এটা এই এলাকার জন্য আনন্দের খবর।

লালমনিরহাট পর্যটক দেশজুড়ে-স্পেশাল