চিত্রনায়ক রাফাত রউফের ক্যারিয়ারের চতুর্থ সিনেমার শুটিং সম্পন্ন


DBkhobor24 প্রকাশের সময় : ফেব্রুয়ারী ২৫, ২০২২, ১০:৫৮ PM /
চিত্রনায়ক রাফাত রউফের ক্যারিয়ারের চতুর্থ সিনেমার শুটিং সম্পন্ন

মোঃ রাসেল হাসান, স্টাফ রিপোর্টার (নেত্রকোনা)

চিত্রনায়ক রাফাত রউফ। ‘তোর মাঝে আমার প্রেম’ সিনেমার মাধ্যমে প্রথম চলচ্চিত্রে আত্মপ্রকাশ করেন তিনি। এরপর যথাক্রমে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন ‘শাহাজাদা’ ও ‘হৃদয়ে বাংলাদেশ’ মুভিতে। সিনেমাদ্বয় মুক্তি পেতে না পেতেই তিনি প্রেমের কবিতা সিনেমারও শুটিং শেষ করলেন।

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত চলচ্চিত্র পরিচালক রিয়াজুল রাজু পরিচালিত তাঁর দ্বিতীয় সিনেমা রাফাতের ক্যারিয়ারের চতুর্থ সিনেমা। শিল্প-সাহিত্যের ঘাঁটি খ্যাত পরম মনোহর স্থান নেত্রকোনার বিরিশিরিতে ‘প্রেমের কবিতা’র শুটিং সম্পন্ন হয়েছে। জানা যায়, ১৯৯৩ সালে দেশবরেণ্য চলচ্চিত্রকার এহতেশাম পরিচালিত এবং চিত্রনায়িকা শাবনূর এঁর অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র ‘চাঁদনী রাতে’র শুটিং হয়েছিল নেত্রকোনার দুর্গাপুরের এই বিরিশিরিতে। এরপর দীর্ঘ ২৮ বছর কোনোও চলচ্চিত্রের পূর্ণাঙ্গ শুটিং হয়নি এখানে।

চিত্রনায়ক রাফাত রউফ বলেন, চলচ্চিত্র আমার পিতামাতার রক্তের সাথে জড়িত। তাঁদের দেখানো ও শেখানো পথ নিশ্চয়ই উৎকৃষ্ট। তাই সে পথেই পথ হাঁটছি আমি। যথাক্রমে ‘তোর মাঝে আমার প্রেম’, ‘শাহাজাদা’, ‘হৃদয়ে বাংলাদেশ’ মুভিতে মূল চরিত্রে অভিনয় করেছি। সম্প্রতি ‘প্রেমের কবিতা’র শুটিংও শেষ হয়েছে। আমি চলচ্চিত্রের সাথে আজীবন থাকতে চাই। সবার দোয়া ও ভালোবাসা থাকলে অনেকদূর যেতে পারবো। সবার কাছে দোয়া ও ভালোবাসা প্রত্যাশা করছি।

প্রেমের কবিতার পরিচালক রিয়াজুল রিজু নতুন সিনেমাটি নিয়ে তাঁর ফেসবুক আইডিতে লিখেন, গ্রামাঞ্চলের একটা ঐতিহ্য আছে। কোনো খেলা নিয়ে প্রতিযোগিতায় খাশি (ছাগল) উপহার হিসেবে রাখা হয়।

খেলা শেষে জয়ী এবং পরাজিত দলের সদস্যরা মিলে সেই খাসি জবাই করে খায়। একটা উৎসবমুখর আমেজ থাকে। দর্শক যখন সিনেমাটি দেখবেন আনন্দ পাবেন বলেই বিশ্বাস করছি। এই নির্মাতা জানান, গত ৭ই ফেব্রুয়ারি নেত্রকোনা জেলার বিরিশিরিতে সিনেমাটির শুটিং শুরু হয়। চলতি মাসেই এর দৃশ্যধারণ শেষ হয়েছে। সবকিছু ঠিক থাকলে এই বছরের বছরের শেষ দিকে প্রেক্ষাগৃহে ‘প্রেমের কবিতা’ মুক্তি পাবে।

কবি মোঃ রাসেল হাসানও রাফাত অভিনীত শাহজাদা মুভিতে অভিনয় করেছিলেন। রাফাত রউফের পারফরম্যান্স প্রত্যক্ষদর্শনকারী এ কবি বলেন, রাফাত ভাই দেখতে যেমন সুদর্শন তেমনি অভিনয়ও করেন দুর্দান্ত। তাঁর অনবদ্য চুলের প্রশংসা না করলে ভুল হবে। অচিরেই তিনি সর্বস্তরের চলচ্চিত্রপ্রেমী মানুষদের হৃদয়ে জায়গা করে নিবেন- এ আমার দৃঢ় বিশ্বাস।

রাফাত রউফ চিত্রনায়ক ফরহাদ রউফ ও চিত্রনায়িকা রেবেকা রউফ এঁর পুত্র। জনপ্রিয় অভিনেত্রী রেবেকা রউফ তাঁর ছেলে সম্পর্কে বলেন, রাফাত একে একে চারটি মুভিতে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছে। পরিচালকদের দৃষ্টিতেও যথেষ্ট ভালো পারফরম্যান্স ছিল। আপনারা দোয়া করবেন রাফাত যেন তার স্বপ্ন স্পর্শ করতে পারে।