কাদের মোল্লার ফাঁসির রায় কার্যকরকে কেন্দ্র করে নুরুল হুদা হত্যার প্রধান আসামি আটক


DBkhobor24 প্রকাশের সময় : মার্চ ২৪, ২০২২, ৬:০৫ PM /
কাদের মোল্লার ফাঁসির রায় কার্যকরকে কেন্দ্র করে নুরুল হুদা হত্যার প্রধান আসামি আটক

চট্টগ্রাম ব্যুরো।

কাদের মোল্লার ফাঁসির রায় কার্যকরকে কেন্দ্র করে নুরুল হুদা হত্যার প্রধান আসামি আটক।
যুদ্ধপরাধীদের বিচারকে কেন্দ্র করে চকরিয়ায় আলোচিত ও চাঞ্চল্যকর নূরুল হুদা হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী মোঃ সোহায়েত (৩২) র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার।

গত ৩০ জুন ২০১৬ইং তারিখ কক্সবাজার জেলার চকরিয়া থানাধীন বদরখালী এলাকার একটি চায়ের দোকানের টিভিতে জামায়াত নেতা কাদের মোল্লার ফাঁসির রায় কার্যকর হওয়ার খবর সম্প্রচার হচ্ছিল। উক্ত সংবাদ দেখে বদরখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুল হুদা বলতে থাকেন, এই সরকার ক্ষমতায় আসার পর একে একে সব রাজাকারের ফাঁসি দিচ্ছে।

এসময় চা দোকানে থাকা নুরুল হুদার আপন ভাতিজাসহ স্থানীয় কিছু দুষ্কৃতিকারী নুরুল হুদার কথায় ক্ষিপ্ত হন। পরবর্তীতে নুরুল হুদাকে চা দোকান থেকে অপহরণ করে কক্সবাজার জেলার চকরিয়া থানাধাীন বদরখালী ইউনিয়নের ঠুটিয়াখালীপাড়া ফাঁকা জায়গায় নিয়ে গিয়ে তাকে গলাকেটে নির্মম ও নৃশংসভাবে হত্যা করে। এ ঘটনায় ভিকটিমের ছেলে শাহজাহান বাদী হয়ে গত ০৩ জুলাই ২০১৬ইং তারিখ পাঁচ জনকে আসামি করে কক্সবাজার জেলার চকরিয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন, যার মামলা নং-০১ তারিখ ০২ জুলাই ২০১৬, ধারা ৩৬৪/৩০২/৩৪; দণ্ডবিধি-১৮৬০।

উক্ত মামলায় ১৮ জন সাক্ষীর মধ্যে ১৩ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ ও তদন্ত শেষে গত ১৮ নভেম্বর ২০১৬ইং তারিখ কক্সবাজার জেলার চকরিয়া থানা পুলিশ পাঁচজনকে আসামি করে বিজ্ঞ আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। উক্ত অভিযোগপত্র ও সকল সাক্ষ্য প্রমানের ভিত্তিতে চট্টগ্রাম বিভাগীয় দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল কর্র্তৃক গত ০৬ মার্চ ২০২২ইং তারিখে উক্ত মামলার পাঁচজন আসামির মধ্যে তিন জনকে মৃত্যুদন্ড ও একজনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড এবং অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় একজনকে খালাস প্রদান করেন।

উল্লেখ্য যে, উক্ত রায়ে ধৃত পলাতক আসামী মোঃ সোহায়েত যাবজ্জীবন কারাদন্ড সাজাপ্রাপ্ত আসামী ছিল। মতবিরোধের জের ধরে এই ধরনের নৃশংস ও পাশবিক হত্যাকাণ্ডের প্রেক্ষিতে গত ০৬ মার্চ ২০২২ইং বিজ্ঞ আদালতের রায়ের পর উক্ত মামলার মৃত্যুদন্ড ও যাবজ্জীবন কারাদন্ড সাজাপ্রাপ্ত আসামীদের গ্রেফতারের লক্ষ্যে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম ব্যাপক গোয়েন্দা নজরদারী এবং ছায়াতদন্ত শুরু করে।

নজরদারী এক পর্যায়ে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, উক্ত মামলার যাবজ্জীবন কারাদন্ড সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি মোঃ সোহায়েত কক্সবাজার জেলার চকরিয়া থানাধীন মগনামাপাড়া এলাকায় আত্মগোপন করে রয়েছে। উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে গত ২৪ মার্চ ২০২২ইং তারিখ রাত আনুমানিক ০২.৩০ ঘটিকায় র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম এর একটি আভিযানিক দল বর্ণিত এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে আসামী মোঃ সোহায়েত (৩২) কে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

উল্লেখ্য যে, সিডিএমএস পর্যালোচনা করে ধৃত আসামীর বিরুদ্ধে কক্সবাজার জেলার চকরিয়া থানায় ১৪৩/৩৪১/ ৩২৩/৩২৪/৩৭৯/১১৪/৫০৬ ধারায় একটি মামলা পাওয়া যায়। গ্রেফতারকৃত আসামী সংক্রান্তে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের নিমিত্তে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।