ইয়াবা পাচারে শিশু-কিশোরদের ব্যবহার মূল হোতাসহ আটক ৩


DBkhobor24 প্রকাশের সময় : মার্চ ৫, ২০২২, ৩:১৪ PM /
ইয়াবা পাচারে শিশু-কিশোরদের ব্যবহার মূল হোতাসহ আটক ৩

মোহাম্মদ জুবাইর চট্টগ্রাম

কক্সবাজারের উখিয়া হতে প্রায় ২ লাখ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধারপূর্বক সিন্ডিকেটের মূলহোতাসহ ৩ জন মাদকব্যবসায়ী কে আটক করেছে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম।

জানা যায়, গত ০৪ মার্চ ২০২২ ইং তারিখে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারে যে, কতিপয় ব্যক্তি মাদকের একটি বড় চালান নিয়ে অটোরিক্সাযোগে টেকনাফ হতে কক্সবাজারের দিকে আসছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে গত ০৪ মার্চ ২০২২ ইং তারিখ ১২.০৫ ঘটিকায় র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম এর একটি চৌকষ আভিযানিক দল কক্সবাজার জেলার উখিয়া এলাকায় একটি চেকপোস্ট স্থাপন করে গাড়ী তল্লাশী শুরু করে।

এ সময় একটি অটোরিক্সা হতে ০৩জন ব্যক্তি পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টাকালে র‌্যাব সদস্যরা আসামী ১। মোঃ হেলাল উদ্দিন (২৭) ২। মোঃ তারেক (২৩) ৩। নুরুল আমিন (১৯) কক্সবাজারদেরকে আটক করে। পরবর্তীতে উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মুখে আটককৃত আসামীদের হাতে থাকা প্লাস্টিকের বস্তা হতে মোট ১,৯৬,০০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধারসহ আসামীদের গ্রেফতার এবং অটোরিক্সাটি জব্দ করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আসামীদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, তার দুজনেই মায়ানমার সীমান্তে ইয়াবা সম্রাট নামে পরিচিত। মূলত এই হেলাল-তারেক অপেক্ষাকৃত কম বয়সে সর্বনাশা ইয়াবার ব্যবসা করে অধিক অর্থবিত্তের মালিক হওয়ায় এবং তারা খুব সহজেই তাদেরকে উদাহরণ হিসেবে উপস্থাপন করে যুবসমাজ তথা শিশু-কিশোরদেরও এই জঘন্য ব্যবসায় নিয়ে আসছে। ইয়াবা পাচারের জন্য তারা সবসময়ই শিশু-কিশোরদের ব্যবহার করতো। এখানে উল্লেখ্য যে, হেলাল-তারেক মায়ানমার সীমান্তে ইয়াবা ট্যাবলেট পাচারের অন্যতম বড় সিন্ডিকেট ছিলো।

জিজ্ঞাসাবাদে আরো জানা যায় যে, তারা টেকনাফ হতে ইয়াবা ট্যাবলেট সংগ্রহ করে পরবর্তীতে তা কক্সবাজার এবং চট্টগ্রামসহ দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে বিক্রয় করে আসছে। উদ্ধারকৃত ইয়াবার আনুমানিক মূল্য ৬ কোটি টাকা।

গ্রেফতারকৃত আসামীগণ এবং উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্য সংক্রান্তে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।